শিরোনামঃ

থেলাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত শিখাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন


স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার পাট্রা ইউনিয়নের আশুরহাট গ্রামের কৃষক রাজ্জাক বিশ^াস। ২ ছেলে-মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে কোন মতো সংসার ভালোই চলছিল। ১০ বছর পূর্বে থেলাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে একমাত্র ছেলে রুবেল বিশ^াস পৃথিবী থেকে বাবা-মায়ের কোল খালি করে বিদায় নেয়। ছেলেকে চিকিৎসা করাতে গিয়ে সর্বস্ব হারিয়ে বাবা-মা একমাত্র মেয়ে শিখাকে নিয়ে সুখের সংসার করতে বুকে স্বপ্ন বুনেন। কিন্ত ভাগ্যের নির্মম পরিহাস ৬ বছর বয়স থেকেই মেয়ে শিখাও থেলাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত হয়। ব্র্যাক ও স্থানীয় মানুষের সহযোগিতায় চিকিৎসা প্রদান করে আসছেন। বর্তমানে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলে হাসপাতালের ইন্টারভেনশনাল এন্ডোসকোপিস্ট ও লিভার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. পল্লব কুমার দত্তের তত্বাবধায়নে চিকিৎসাধীন। চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতে নিয়ে যেতে বলেছেন। তার বর্তমানে প্রতিদিন ১ হাজার ২০ টাকা করে ঔষধ লাগে আর ১৫ দিন থেকে এক মাস পর রক্তের প্রয়োজন হয়। ছেলেকে চিকিৎসা করাতে গিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়া বাবার সবটুকু হারিয়ে এখন বিনা চিকিৎসায় মরতে বসেছে মেয়ে শিখা। শিখাকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন অসহায় ও হতদরিদ্র বাবা-মা। আপনাদের একটু সহযোগিতায় বাঁচতে পারে ২১ বছর বয়সী শিখার প্রাঁণ। সাহায্য পাঠাতে পারেন: বিকাশ: ০১৩০৫৭৬৩১১৪ (পার্সোনাল), ব্যাংক এশিয়া (এজেন্ট ব্যাংক) একাউন্ট নম্বর: ১০৮৩৪৮২০৫৬৭৬০, লাড়িবাড়ী বাজার, কালুখালী,রাজবাড়ী শাখা

অন্যান্য খবর পড়ুন