শিরোনামঃ

নির্বাচনের কোট কেটে দিয়েছি ঈগল পাখি মার্কা নিয়ে খেলবেন জনগণ


স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী-২ (পাংশা, বালিয়াকান্দি, কালুখালী) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও বাংলাদেশ কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী হক বলেছেন, মদাপুর থেকে বাহাদুরপুর, জামালপুর থেকে হাবাসপুর এ ভৌগলিক সীমারেখার সংসদীয় আসন। এ আসনের নির্যাতিত, নিপিড়িত, শোসিত মানুষের জিম্মিদশা থেকে মুক্তির লক্ষ্যে আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি। নির্বাচনী কোট কেটে দিয়েছি, এখন খেলবে জনগণ। কোন হুমকি-ধামকি দিয়ে লাভ হবে না। যখন পায়ের তলা থেকে মাটি সরে যায়, তখন হুমকি হয় তার ভরসা। রবিবার সকালে পাংশার শাহ জুঁই (রহঃ) মাজার জিয়ারত করার পর দিনভর পাংশা শহরে লিফলেট বিতরণ ও পথসভায় এসব কথা বলেন।
নুরে আলম সিদ্দিকী হক বলেন, সুষ্টু নির্বাচনের ব্যবস্থা করবে প্রশাসন। জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিবেন। কিন্তু ভয়ভীতি দেখিয়ে, প্রচারনায় বাঁধা দিয়ে লাভ হবে না। প্রশাসন শক্ত হাতে দমন করবেন। ইতিমধ্যে কালুখালীতে দেখেছেন প্রচারণায় বাধা দেওয়ায় পুলিশ তাকে আটক করে।
গণসংযোগ ও প্রচারণার সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও সাবেক অতিরিক্ত সচিব ড. শেখ মোহাম্মদ রেজাউল ইসলাম, রাজবাড়ী জেলা কৃষক লীগের আহবায়ক আবু বক্কর খান, যুগ্ম আহবায়ক ডা. আব্দুর রহিম মোল্যা, বোয়ালিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হাসেম সহ কৃষকলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে তিনি কালুখালী উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ, ভোট প্রার্থণা ও লিফলেট বিতরণ করেন।
রাজবাড়ী-২ আসনের সতন্ত্র প্রার্থী কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা নূরে আলম সিদ্দিকী হক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথায় উদ্ভুদ্ধ হয়ে এবং ৭ জানুয়ারীর নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ হবে এই প্রত্যাশায় রাজবাড়ী-২ সংসদীয় আসনে সতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ঈগল প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করছেন। এই ঈগল প্রতিক নির্যাতিত, নিপেরিত, অসহায় ও গণ মানুষের প্রতিক। তবে নির্বাচনের ভোট গ্রহন সবার অংশ গ্রহনে উৎসবমূখর পরিবেশ হবে। আশা করছি সেই পরিবেশ ঠিক করে দেবে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী আমার বড় ভাই মোঃ জিল্লুল হাকিম।
তিনি বলেন, পাংশা, বালিয়াকান্দি ও কালুখালীর অনেক প্রবীণ দলীয় নেতাকর্মীরা আজ ভাল নাই। তাদের ভাল থাকতে দেন নাই এই অঞ্চলের দ্বায়িত্বরত এক ব্যাক্তি। ফলে তিনি এইসব মানুষের পক্ষে নির্বাচন করছেন। ভোটের মাঠেও বেশ সারা পাচ্ছেন। জনগণ ভোটের মাঠে গিয়ে ভোট দিতে পারলে তার বিজয় সু-নিশ্চিত। ভোট গ্রহণ উৎসবমূখর এবং অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ করতে প্রার্থীদের পাশাপাশি ভোটার, ভোট গ্রহন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের দ্বায়িত্ব রয়েছে।
তিনি আরও বলেন, সবার ভালবাসা নিয়ে খেলার জন্য কোর্ট কেটে দিয়েছি, এখন খেলবে জনগণ। এ সময় তিনি কর্মী সমর্থকদের নিয়ে পাংশা থানা রোড হয়ে শহরের বিভিন্ন স্থান ও আজিজ সরদারের মোড়ে গণসংযোগ করে ঈগল প্রতিকের ভোট প্রার্থনা করেন নূরে আলম সিদ্দিকী হক।
রাজবাড়ী-২ (পাংশা, বালিয়াকান্দি ও কালুখালী) আসনের সতন্ত্র প্রার্থী কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ নেতা নূরে আলম সিদ্দিকী হক সহ ভোটের মাঠে ৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।

অন্যান্য খবর পড়ুন